ঢাকাবুধবার , ৩ এপ্রিল ২০২৪
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

মুক্তির অভিলাষ

মৃধা প্রকাশনী
এপ্রিল ৩, ২০২৪ ৭:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সুমাইয়া নূর

আগের থেকে জানিনা কেমন যেন বেখেয়ালি হয়ে গেছি।আমি ছোট থেকেই বেশ চঞ্চল,কথার পিঠেই কথা বলি।কিন্তু এখন যেন পুরোপুরি বদলে গেছি।আমি প্রচুর হাসতাম,মানুষকে হাসাতাম।সেই কবে যে প্রাণ খুলে হেসেছি তা আমার মনে নেই,আমার মন খারাপ হলে কেউ বোঝেনা,কেউ আমাকে হাসাতেও চেষ্টা করেনা।আগে আমি সারাবাড়ি ঘুরে ঘুরে গান গাইতাম।কারেন্ট চলে গেলে বেসিনের সাসনে সেলের উপর মোমবাতি জ্বালিয়ে আয়না দেখতাম আর একটার পর একটা গান গলা ছেড়ে গাইতা।রাস্তার পাশেই বাড়ি,সন্ধ্যায় বা রাতে লোকজন রাস্তা দিয়ে হাটাচলা করত,তারা রোজ আমার গান শুনতে পেত,কিন্তু এখন আর তারা গান শুনতে পায়না।পাবেই বা কি করে এখন যে আমি গাইতে ভুলে গেছি!মাঝে মাঝে রাস্তায় দাড়িয়ে থাকা কোন ছেলে,আমার গাওয়া গানের লিরিক গলায় টান দিত,তবুও আমার কোন সাড়া পেত না।মাঝে মাঝে আম্মু বের হলে কেউ কেউ বলত,আপনার বাসায় যে গান গাইত,সে কি বাসায় নেই?সন্ধ্যে বেলা পড়ার টেবিলে বসে আছি, ছোট বোন আবদারের সুরে বলল,আপু কতদিন তুই গান করিস না,আগে তো রোজ গাইতি।তোর গান না শুনলে ভালো লাগে না, প্লিজ গা না।ইচ্ছে থাকা সত্বেও আমি গানের একটা লাইন ও গাইতে পারলাম না,মন চাইলেও গলা দিয়ে বের হলো না।কী অদ্ভুত চঞ্চল প্রাণবন্ত মেয়ে আমি!অথচ কিভাবে এত নিশ্চুপ হয়ে গেলাম কেউ জানেনা।কারণটা অবশ্য আমারো জানা নেই।রাত হলেই মাথায় জেঁকে বসে যতসব চিন্তা! নিজের স্বপ্ন, ভবিষ্যৎ, পড়াশোনা আর পরিবারের সম্মানের চিন্তায় আমি কাতর হয়ে আসছি।চাইলেও এখন হাসতে পারিনা।নির্ঘুম রাত কাটানো আমার নিত্যদিনের রুটিন।কবে এই দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি পাবো জানিনা।আমার আমাকেই যেন আমি চিনতে পারছিনা।কতটা বদলে গেছি নিজেরও ধারণা নেই।পরিবার, সমাজ,এসবের চিন্তায় যেন নিজের ভেতরটা অনুভূতিহাীন রোবট হয়ে গেছে, বাইরে থেকে দেখতে কেবল মাত্র রক্তে মাংসে গড়া মানুষ আমি।যেখানে আমার কোন চাওয়া নেই, নেই কোন বাক স্বাধীনতা। সমাজের মানুষের দেওয়া বেরাজালে আটকিয়ে গেছি!আমি কি পারবো নিজেকে এই গন্ডি থেকে বের করতে?অবশ্যই পারবো,শুধু আমার ইচ্ছেটুকু দরকার, প্রয়োজন অদম্য আত্মবিশ্বাস, নিজেকে উচ্চে তুলে ধরার তীব্র স্পৃহা। হ্যাঁ,তবেই আমি পারব নিজেকে সমাজের এই বেরাজাল থেকে মুক্ত করতে।আমি আবার প্রাণ ফিরে পাবো।হাসবো,গাইবো,ঘুরবো,কথা বলব প্রাণ খুলে। নিজেকে মুক্ত পাখির মতো মেলে ধরবো বিশাল নীল আকাশে, মেঘের সাথে বন্ধুত্ব করব।তাদের রাজ্যে গিয়ে প্রশান্তির নিদ্রায় বিলীন হবো!

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial