ঢাকাবুধবার , ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

ভাষার মাস ফাল্গুন

মৃধা প্রকাশনী
ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪ ৭:৫৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

-জাহাঙ্গীর আলম

বায়ান্নের আট ফাল্গুন, ফুল ফুটতে শুরু করেছে সোনালী আভায়,
শীত যে কেবল যায় য়ায়,
কৃষকের কামকাজ যে প্রায় ফুরায় ফুরায়।
এ’রি মাঝে বসন্ত এসে হাজির কৃষকের চৌকাঠে!

রাঙা মায়ের উঠানে রক্তিম সূর্যের উঁকি;
উষ্ণতা বয়ে দিলো ফুলে ফুলে।
জবা, গাধা, শিমুল ফুঠেছে থোকায় থোকায়!
গাছে গাছে তরুণ, কোমল পাতাদের হাতছানি,
ফসলের ক্ষেতে নতুন চারা ধানগাছ— সারা মাঠ ছেঁয়ে আছে সবুজে সবুজে।
আবার কোথাও কোথাও হলুদ সরিষা ফুল আছে মাঝে।
যেন ফাল্গুনে রুপালী বাংলা প্রস্তুত বসন্ত বরণে!

ঠিক তখন’ই উঁকি দিল এক শকুনের দল,
প্রথম থাবাটাই দিল আমার মায়ের দিকে;
যেই মা থাকে আমাদের অন্তরে অন্তরে, আমাদের মুখে মুখে!
সালাম, জব্বার, রফিকসহ সকল ছাত্রজনতা তখন ভেঙে পরলেন তীব্র প্রতিবাদে।
ঝরল কত তাজা প্রাণ, কত তাজা ফুল!
নিজেদের তাজা প্রাণ বিলিয়ে দিলেন মা’কে বাঁচাতে— যেই মা থাকে আমাদের অন্তরে অন্তরে, আমাদের মুখে মুখে।

দুঃখিনী মায়ের কোল হলো খালি, চোখ হলো ভারী।
আজো ফাল্গুন এলে দুঃখিনী মায়ের বুক কেঁপে ওঠে,
আজো ফাল্গুন এলে দুঃখিনী মায়ের শোকাবহ শরীর আঁতকে ওঠে!
বিভর্ষ সেই নিদারুণ করুণ স্মৃতি এখনো তাঁড়িয়ে বেড়ায় তাঁকে!
এতো ফুল ফুটে ফাল্গুনে, এতো রঙের পুষ্প
চারদিকে— তার সবকটি পুষ্প অর্পণে শ্রদ্ধা জানালেও কভু পারে না দুঃখিনী মায়ের সন্তান হারার বেদনা ভুলাতে।

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial