ঢাকামঙ্গলবার , ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

জীবন

মৃধা প্রকাশনী
ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২৪ ৬:১১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

— অচেনা পাথর

 

কারো চেষ্টা, কারো পরিশ্রম
কারো কষ্ট, কারো যন্ত্রণা বিষম।
জন্মে একটি শিশু
শোভা পায় মায়ের কোলে
ধীরে ধীরে হয় সে বড়
কদিন বা দোলনায় দোলে।
যখন শিখল হাটতে
মাকে হয়না ভাবতে
ভূল যদি হয় কখনো
বোঝায় সেটা না হয় যাতে।
ধীরে ধীরে মনের বিকাশ
কিন্তু সে বাচ্চা
হবে সে অনেক বড়
হবে সে সাচ্চা।
পড়ালেখা শিখতে গেল
স্কুলের আঙিনায়
শিখল সে আগ্রহ নিয়ে
যত কিছু শেখা যায়।
বর্ণমালা, যোগ, বিয়োগ
গুণ, ভাগ শিখে
যেতে থাকল সে তখন
উচ্চশিক্ষার দিকে।
তখন তার মনের ভিতর
উদয় হলো জীবনবোধ
হয়তো সে ছিল এতদিন
বালক, খুবই শান্ত-সুবোধ।
কৈশোরে পা পড়তেই তার
চমকে গেল সে হঠাৎ করে
আগে তো কখনো হয়নি এমন
ভাবেনি তো এমন করে।
বড় বড় বিপদজনক
ঝুঁকি নিতে চায় মন
কিন্তু সে করবেনা ভুল
বারবার করে পণ।
কাজের মাঝে ভুল হয় তার
পরক্ষণে ভুল বুঝে
শোধরায় সে, জিজ্ঞেস করে
নিজেরই সাথে যুঝে।
এমন সময় পরিচয় হয়
তার সাথে কিছু শব্দ
আবেগ, অনুভূতি, প্রেম, ভালোবাসা
মানসলোক লব্ধ।
ধীরে ধীরে সে হয়ে গেল বড়
শেষ হল তার শিক্ষা
জীবনের প্রথম পর্বেই তার
হয়ে গেছে ধর্মদীক্ষা।
কর্মজীবনে হাজার পেশার
বেছে নিল একটাকে
জীবন-সঙ্গী খুজল সে
কাজের ফাকে ফাকে।
খুজে পেল সে জীবন-সঙ্গী
চলল তারই সাথে
দু’জনে তারা এক হয়ে যায়
নতুন ঘর বাঁধে।
স্বামী-স্ত্রী দু’জনে মিলে
করে পরিশ্রম যত্ন
হয়তো তাদের ঘরেও আসবে
অমূল্য এক রত্ন।
জীবনের এত কোলাহলে সে
হারিয়ে ফেলে ভাষা
হয়তো তার পূর্ব-পুরুষ
ছিল এককালে চাষা।
তেমনি জীবন চাইল পেতে
বিপদ বাড়ল তাতে
এমন পথে চলতে গেলে
কেউ যাবে না সাথে।
খাটা-খাটুনি করে যৌবনে
করে ধন-সঞ্চয়
যেন তাতে তার বার্ধক্য
অনেক সুখের হয়।
এমনি করে বয়স বাড়ে তার
হয়ে যায় সে বুড়ো
তারি ছেলে-মেয়ে, নাতি-পুতি এসে
চারিপাশে হয় জড়ো।
হয়তো সুখে, হয়তো দুখে
মৃত্যু তার দুয়ারে আসে
স্মৃতির পাতা স্মরণ করে
কখনো কাঁদে কখনো হাসে।
এমনি করে একদিন তার
হয়ে গেল ইন্তেকাল
আত্মীয়-স্বজন সবাই কাঁদে
কাঁদে সব ফ্যালফ্যাল।
এমনি করেই জীবন চলে
জীবনের গতিতে
জীবন একটা জটিল জিনিস
শেষ যার মৃত্যুতে।
মৃত লোকটির মনের ভিতর
হয়তো ছিল অনেক ইচ্ছা
কিন্তু সে তা করেনি প্রকাশ
করেনি যা ছিল বীপ্সা।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
তরুণ রাজকুমার
বয়স হলে যে যুদ্ধ করবে
রাজ্য হবে তার।
রাজা হয়ে সে চালাবে দেশ
রাজ্যপাটে বসে
করবে সে জীবন-যাপন
রাজকীয় আয়েশে।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
সাহসী এক সৈন্য
যুদ্ধ করবে অন্যায়ের সাথে
প্রতিষ্ঠা করবে ঐক্য।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
প্রকৃতির একজন
যাতে সে কাটায় জীবন
প্রকৃতির মতন।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
অনেক বড় ধনী
যার দ্বারা সে হতে পারে
বড় জ্ঞানী-গুণী।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
সুদর্শন এক তরুণ
যাতে তাকে ভালোবাসে
অবুঝ অবোলা মন।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
দেশের কর্ণধার
রাজনীতি, অর্থনীতি,সমাজনীতি
সব নীতি পদানত হবে তার।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
মহাশক্তিধর
করবে সে বিশ্বজয়
লোকে করবে সমাদর।
হয়তো সে হতে চেয়েছিল
এমন একজন বিজ্ঞানী
আবিষ্কার করতো এমন কিছু
কোনদিন ক্ষতি করবেনা জানি।
হয়তো এমন অনেক কিছু
হতে চেয়েছিল সে
কিন্তু সে যা হতে চেয়েছিল
তা কি হতে পেরেছে?

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial