ঢাকাবুধবার , ৩ জানুয়ারি ২০২৪
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

সে একবিন্দু শিশির ছিলো

মৃধা প্রকাশনী
জানুয়ারি ৩, ২০২৪ ৯:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

সে এসেছিল কোন এক রাতে
বসেছিল পাশাপাশি আমার-ই সাথে।

লাল বেনারশি পড়া,সাদাকালো চুরি,
কানে এক ফুল গোজা,কেশগুলো ছাড়ি,
পায়েতে আনতা মাখা,চোখে কালো কাজল
অপলক চেয়েছিল—অশ্রুসজল!

মৃদু পদে চুপিকারে মোরে ঘেঁসে দারায়,
জ্যোস্নামাখা হাত মোর পানে বাড়ায়,
কথা নেই মুখে তার অপলক চাইনি—
জানি সে একরোখা আর অভিমানী!

আচমকা তারে দেখে কথাগুলো যেন মোর
হারিয়েছে সীমা ছেড়ে অজানায় বহুদূর!

নিশ্চুপে-ভাষাহীন কেটেছিল সেই রাত,
প্রেম বিনিময়হীন হয়েছিল সে প্রভাত।
সেই রাতও পারিত প্রেম-স্মরণিকা হতে,
স্মৃতি হতে পারিত তিমিরের পরতে!

দোঁহেরে একসাথে দেখে এসেছিল জোনাই,
বলেছিল-“এক মিলনে অভিবাদন জানাই!”
জোছনাও হেসেছিল বলেছিল-“সুন্দর!”
তবে মোরা অভিমানে নিশ্চুপ মন্থর!
ঝরেছিল বাগানের গোলাপের পাপড়ি,
বেজেছিল হৃদ’-মাঝে প্রেম সুর লহরি!

অভিমানে দুজনেই মন মাঝে হই ছাই,
তবু নাহি দুজনে দুজনারে দেই সায়!

স্তব্ধ ও মন্থরে কেটে গেল সারারাত,
মান-অভিমান করে এসে গেল সে প্রভাত!

প্রভাতের আলোকে দেখি–সে ঐ নিশির
সারারাত জমে পরে ঝরে পড়া সে শিশির!

মারিয়াম বিনতে আঃ জলিল (কুমিল্লা)

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial