ঢাকারবিবার , ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

থার্টি ফার্স্ট নাইটে আতশবাজি ও ফানুস উড়ানো থেকে বিরত থাকুন

মৃধা প্রকাশনী
ডিসেম্বর ৩১, ২০২৩ ১২:১৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

পৃথিবীর সকল দেশে বহু বছর ধরে পালিত হয়ে আসছে থার্টি ফার্স্ট নাইটের উদ্‌যাপন। বাংলাদেশও পালিত হয় এই উৎসবটি। বিভিন্ন জায়গাতে গান, বাজনা, নৃত্য ইত্যাদির মাধ্যমে উদ্‌যাপিত হয় এই অনুষ্ঠান। তবে ঘড়ির কাঁটা রাত বারোটার ঘরে যেতে না যেতেই একটা অশান্তিকর অবস্থার সৃষ্টি হয়। নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন কীসের কথা বলছি। হ্যাঁ, ঢাকা শহরজুড়ে ভয়াবহ আতশবাজি ও পটকা ফোটানো এবং ফানুস উড়ানোর বিষয়েই বলতে আজকে লেখাটি। বিষয়টি এখন আর ঢাকা শহরের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই, দেশের সব বড় শহরগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে।

থার্টি ফার্স্ট নাইটে চারদিকের অসহনীয় শব্দদূষণ ও পটকাবাজির বিকট আওয়াজে শিশুদের ঘুম ভেঙে যায়। ক্ষণে ক্ষণে কেঁপে ওঠে সে আতঙ্কিত চোখে। অসুস্থ লোক বিছানায় উঠে বসে থাকে নীরব রাতের অপেক্ষায়। পরীক্ষার্থীদের পড়া থমকে যায়। নির্ঘুম রাত কাটে তার পড়াহীন অবস্থায়। আরো একটি বিষয় হচ্ছে এই আতশবাজিতে শত শত পাখিরা মারা যায়। সকালে বিভিন্ন গাছের নিচে গেলে দেখা যায় পাখিদের মৃতদেহ। এসব পটকাবাজি আতশবাজি ছাড়াও আমরা উদ্‌যাপন করতে পারি এই রাতটি কিন্তু আমরা তা করছি না। মানুষ হিসেবে অপর মানুষের নিরাপদ ঘুম,শব্দ দূষণমুক্ত পরিবেশ উপহার দেওয়া আমাদের সকলের কর্তব্য। এর পাশাপাশি পাখপাখালিদেরও নিরাপদ রাখা আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। সুতরাং সকল দিক বিবেচনা করে নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করে আমাদের সকলকে থার্টি ফার্স্ট নাইটের আতশবাজি, পটকাবাজি, করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

লেখক,মো. আব্দুল ওহাব
শিক্ষার্থী, আরবি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
wohabbuipur@gmail.com
সদস্য, বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial