ঢাকাশনিবার , ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

নববর্ষে কামনা

মৃধা প্রকাশনী
ডিসেম্বর ৩০, ২০২৩ ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নতুনত্ব শব্দটি অতি ক্ষুদ্র হলে ও অনুভূতিটা সমপ্রসারিত। এই শব্দটি হৃদয়াঙ্গম হলেই আমাদের মাঝে আনন্দ, উৎফুল্ল ও সজীবতা বিরাজমান হয়।তবে সেই নতুনত্ব যদি হয় বছর কে ঘিরে তাহলে তো আমাদের প্রফুল্লতার ইয়াত্তা থাকে না। নতুন বর্ষের আগমন মানেই রাতে ফানুস উড়ানো, রাতভর আড্ডা দেয়া , পাটি দেয়া ,নেশা পান করা ,১২:০১ মিনিটে পোষ্ট সহ নানা আয়োজনে উৎফুল্ল হওয়া।

আমরা সাধারণ বুঝি নতুন বর্ষ হলো পুরাতন স্মৃতি মুছে যাক নতুন বছর হোক শুভ কামনার।

সত্যিই কী তা হচ্ছে আমাদের বাস্তবজীবনে?

আমরা অনেকেই বলবো – না।বরং দিন দিন হতাশ যেন আমাদের গ্রাস করছে।

যদি প্রশ্ন করি কেন?

আমরা বলে থাকি অজানা।

আপনি বলুন তো – ২০২৩ সালটি কেন আপনার জন্য হতাশার / ব্যর্থতার ছিলো?

সেই হতাশা/ ব্যর্থতার কালো মেঘ কে দৃঢ় প্রত্যয় করে নতুন বছরকে নিয়ে আপনার নতুন কোনো পরিকল্পনা প্রস্তুুত আছে কী ?

আমরা অনেকেই বলবো না। কারণ- আদৌ আমরা সেই হিসেব মেলাতে প্রস্তুত নয়।

তবে কী করে সেই নতুনত্ব আমাদের হৃদয়ে জাগ্রত হবে?

এবার বলা হয়,আমাদের সেই নতুনত্ব যদি হয় রবের দিকে প্রত্যাবর্তন। তবে আমরা অনেকেই সেই হিসেব মেলাতে অপ্রস্তুত।কেননা নতুনত্বের প্রত্যাবর্তন যদি না হয় রবের তরে। তবে হতাশা তো আমায় গ্রাস করবেই।

এতে আমরা অনেকে দ্বি-মত করে বলে থাকি, রবের করুণা তো আমার ওপরে নেই, যদি থাকতো তাহলে আমায় কেন হতাশা গ্রাস করে?

উওরে বলি – আমরা সেই করুণা নিতেই বা কতটুকু প্রস্তুত। কিন্তু রব তো অফুরন্ত নেয়ামত দিয়েছেন।

আপনার প্রশান্ত হৃদয়ে ভাবুন তো , এই বছরে সালাতসহ রবের পুঙ্খানুপুঙ্খানো হক/ এবাদত আদায় করতে পেরেছি কী?

আমরা মসজিদ এর মুয়াজ্জিনের সুরেলা আহ্বান শুনে ভোরের পাখি হতে পেরেছি?

আলহামদুলিল্লাহ আমরা অনেকে পারি।

তবে সিংহভাগ তরুণ সমাজ মাথা নিচু করে মৃদু সুরে বলবে – পারি নি।

যদি বলা হয় কেন / এ কারণে আপনার হৃদয়ে অনুতপ্ত অনুভূতি হয়েছে কী?

বিস্মিত হয়ে বলি -না। অনেক তো বাকি জীবনে সময় তো আছে বেশ।

হে তরুণ সমাজ, আমরা কী এ মুহুর্তে মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত?

একবার ভাবুন, যদি মরে যায় কী হবে?

আমরা কী রবের আনুগত্য বান্দা হতে পেরেছি? অদ্যবধি পর্যন্ত কতটুকু পুণ্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি ? আমরা কী মৃত্যুর নিয়ে ভেবেছি কখনো?

আমরা যখনই এ প্রশ্নগুলোর সম্মুখীন হয়। নিজে কোথাও যেন বিলীন করে দেয় । অনেকের কাছে কাল্পনিক ও মনে হয়।

তবে আসুন,

সেই সফলতা / ব্যর্থতার হিসেব মেলায়।

যদি ও ব্যর্থতার মহাসাগরে আমরা ভরাডুবি,তাতে কী আসে যায় ‌! রব তো অফুরন্ত নেয়ামত আমাদের দিতে প্রস্তুত।যদি আমরা হয় রবের দিকে প্রত্যাবর্তন।

সবোর্পরি নববর্ষের প্রত্যয় হোক প্রত্যাবর্তন।

লেখক

ইয়ামিন গালিব বিন রাশিদ

ফাজিল (BTIS),১ম বর্ষ

ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial