ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৩০ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

“অব্যক্ত আর্তনাদ “

মৃধা প্রকাশনী
নভেম্বর ৩০, ২০২৩ ১২:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

আমরা মানুষেরা আসলে খুবই অসহায়।নিজের কাছে নিজেই অসহায়।আমাদের জীবনটা কেটে যায় অন্যের পেছনে ছুটতে ছুটতে। লোকে কি ভাববে এসব ভাবতে ভাবতে।নিজের জন্য নিজের মতো করে বাঁচতে পারে কজন বলুন তো? খুব কম মানুষই পারে নিজের জন্য, নিজেকে প্রাধান্য দিয়ে বাঁচতে।

যখনই আপনি নিজেকে নিয়ে একটু ভাবতে যাবেন তখনই আপনিই নিজের নামটা স্বার্থপরের তালিকায় দেখতে পাবেন।বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এটাই ই হয়। ধরুন একটি ছেলের পড়াশোনা র প্রতি প্রবল আগ্রহ। কিন্তু মধ্যবিত্ত ঘরের সন্তান তো।সবাই চায় পড়াশোনা বাদ দিয়ে পরিবারের হাল ধরুক।এইক্ষেত্রে সে যদি নিজ ইচ্ছেকে প্রাধান্য দিতে চায় সেক্ষেত্রে সে স্বার্থপরের পর্যায়ে পড়ে যায় মানুষের চোখে। তেমনি একটি মেয়ের ক্ষেত্রে ও ব্যাপারটা এমন। নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের একটি মেয়ে অল্প বয়সে বিয়ে না নিয়ে নিজের পড়ার দিকে মনযোগী হতে চাই,নিজেকে একটু সময় দিতে চাই বেশিরভাগ সময়ে সে স্বার্থপর বলে গণ্য হয়।বাবার আর্থিক অবস্থা না বুঝে স্বার্থপরতার বহিঃপ্রকাশ ঘটায়।

তবে হ্যা আমরা যদি চাই নিজের বর্তমান টাকে একটু গুছিয়ে নিতে পারি। আজকে এখন যে অবস্থায় আছি সে অবস্থা, সে সময়টা নিজের জন্য উপভোগ্য করে তুলতে পারি।নিজের জন্মদিন টা নিজের মতো করে উদযাপন করুন।নিজেকে উপহার দিন। হোক না সীমিত পরিসরে। দিনের সমস্ত দায়িত্ব পালনের পর নিজেকে একটু সময় দিন, নিজের ভাললাগার কাজগুলো করুন,অবসরে নিজেকে একটু বেড়াতে নিয়ে যান,নিজের ভিতর লুকিয়ে রাখা ছোট ছোট ইচ্ছা গুলো পূরণের চেষ্টা করুন। দেখবেন অনেকটা পরিতৃপ্ত হবেন।স্বার্থপর হতে না পারার পর ও নিজেকে তখন আর অপরাধী মনে হবে না।

 

কানিজ ফাতেমা মুনতাহা
বাংলা বিভাগ, চবি

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial