ঢাকারবিবার , ৫ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

ট্যালিপোটেশন মেশিন

মৃধা প্রকাশনী
নভেম্বর ৫, ২০২৩ ৬:৪৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সালটি ২৮২৩, মানুষ এতটাই উন্নত যে সেখানে কোন রাস্তা নেই।সব যানবাহন আকাশে উড়ে। মানুষ তখন আধুনিক প্রযুক্তির উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ে। আধুনিক প্রযুক্তি ছাড়া তারা একটি দিন কল্পনা করতে পারে না।
এই বছরই মঙ্গলে ঘরবাড়ি বানানো হয়েছে। সেই কাজে নিয়োজিত ছিল বিজ্ঞানী মিস্টার জোসেফ।

তার ছেলের মাইকেল ক্লাস সিক্সের একজন মেধাবী  ছাত্র।তার  মহাকাশ নিয়ে প্রচুর আগ্রহ।তার বাবা একটি যন্ত্র আবিষ্কার করে। যার নাম ট্যালিপোটেশন মেশিন। এই যন্ত্র দিয়ে মুহূর্তেই যে কোন স্থানে যাওয়া যাবে। এ যন্ত্র বানানো হয় মঙ্গলে যাওয়ার জন্য। মাইকেল প্রতিদিনের মতো আজও ঘুম থেকে উঠে। তার অটোমেটিক বিছানা নিজে নিজেই গুছিয়ে যায়।  সে ওয়াশরুমে গিয়ে আয়নার ডিসপ্লেতে তার ডেইলি রুটিন দেখে নেয়। দাঁত ব্রাশ করে রোবট ৩.০ কে বলে থ্রিডি ফুড প্রিন্টারে খাবার বানাতে। রোবট ৩.০ দু তিন মিনিটের মধ্যেই খাবার বানিয়ে আনে খাবার খেতে না খেতেই তার মিনি ড্রোন ২.২ ওরম বলে উড়ন্ত স্কুল এসে পড়েছে।সে জামার একটা বোতাম টিপতেই জামা স্কুল ইউনিফর্মে পরিবর্তন হয়ে গেল।

স্কুল থেকে আসার পর টিভিতে দেখে তার বাবা বলছে মঙ্গলের লোক পাঠাবে। বাবা আসার পর সে তার বাবাকে বলে সেও মঙ্গলে যাবে। কিন্তু তার বাবা রাজি হয় না তারপর তার মা বলে সবাই যখন যাচ্ছে তাকেও যেতে দাও। তারপর তার বাবা রাজি হয়। একমাস পর তাদের স্পেস পরিয়ে টেলিপোর্টেশন মেশিনের মধ্য দিয়ে পাঠানো হবে। সবার আগে যায় মাইকেল। একটা সমস্যার কারণে মাইকেল মঙ্গলে নাগিয়ে অন্য একটি গ্রহে চলে যায়, যার নাম ইথেনিয়াম ২.০। ওই ওই গ্রহেও মঙ্গলের মতো বসতি গড়ে তোলা হচ্ছিল। তবে সেটা এলিয়েনরা করছিল। মাইকেল যাওয়ার পর ভেবেছিল এটাই মঙ্গল। এক দুই দিন থাকার পর সে আজব কিছু প্রাণী দেখে প্রচন্ড ভয় পেয়ে যায়। এরা ছিল এলিয়ান। এদের উচ্চতা ৪ ফুট,মাথা মোটা,গায়ের রং সবুজ,নখ বড়, দুই হাত,দুই পা মানুষের মতোই।তারা বলল আমরা কি বন্ধু হতে পারি। মাইকেল বলল হ্যা,এটা কোন গ্রহ।এলিয়েনরা বলল ইথেনিয়াম ২.০। মাইকেল অবাক হয়ে বলে আমি তো মঙ্গলে এসেছিলাম।
এলিয়েনরা বলে জানিনা তবে আমাদের গ্রহে যাবে। ভয়ে ভয়ে সে রাজি হয়ে যায়। তাদের গ্রহে যাওয়ার পর অন্যান্য এলিয়েনরা ভয় পেয়ে মাইকেল কে বন্দি করে নেয়। মাইকেল তার এআই রোবট কে প্রশ্ন করে কি করব এখন। এই বললো ছুরি দিয়ে এলিয়েন আসলে তার ঘাড়ে আঘাত করে পালিয়ে এলিয়ান বন্ধুরা কাছে যেতে হবে। গিয়ে বন্ধুর কাছ থেকে টেলিপোর্টেশন মেশিন ঠিক করিয়ে পৃথিবীতে ফিরতে হবে। তারপর মাইকেল কথা মতো পালিয়ে বন্ধুর কাছে যায় এবং মেশিন ঠিক করায়। ফিরে যাওয়ার জন্য সে যখন বের হয়। অন্যান্য এলিয়েনরা তখন তাকে আক্রমণ করে। ফলে সে পায়ে আঘাত পায় এবং রক্ত ঝরতে থাকে তার পা থেকে সে ব্যথায় ছটফট করছিল। এলিয়েন বন্ধু এসে তাকে একটা গুলি দেয় এবং বলে যুদ্ধ করতে হবে হার মানলেও চলবে না। যুদ্ধ করতে করতে এক সময়  হাড্ডাহাড্ডি পর্যায় পৌঁছে যায়। এলিয়েনরা অনেক দুর্বল ছিল। এলিয়েন রাজা যখন দেখছিল তাদের এলিয়েন রাই মারা যাচ্ছে ফলে সে যুদ্ধ থামিয়ে দেয়। মাইকেল মেশিনটি বের করে এবং সে ভিতরে চলে যায়। মেশিনটি আবারো নষ্ট হয়ে যায় এবং মাইকেলেক অচেনা গ্রহে এসে পড়ে। মাইকেল খাবার ও পানির অভাবে ছটফট করতে করতে সেখানেই মারা যায়।

কিছুক্ষণ পর একটা ছেলে তার বাবাকে প্রশ্ন করছিল আজ থেকে ৮০০ বছর পর কি হবে।বাবা বলল আমি তো জানি না তবে ভাবতে থাকো ভাবতে ভাবতে উত্তর পেয়ে যাবে।  তখন সালটি ছিল ২০২৩।তখনই আমরা বুঝতে পারি এই ঘটনাটি সেই ছেলেটির কল্পনা ছিল।

আদনান ওয়াহিদ
(ষষ্ঠ শ্রেণি)
Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial