ঢাকারবিবার , ৫ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

জীবন ভাবনা, অহংকার প্রসঙ্গে

জুবায়ের আহমেদ
নভেম্বর ৫, ২০২৩ ১:১৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আমার শৈশবের সময়টা বেশ ইন্টারেস্টিং ছিল। ভালো-মন্দ, হাসি আনন্দ কান্না সবকিছুর সমন্বয়ে সময় কেটেছে। মানুষের দুঃখ কষ্ট, সুখ কিংবা আত্ম অহংকার দেখেছি খুব কাছ থেকে। তবে সবকিছুর মাঝেও তখনকার সময়ে একটা ইতিবাচক বিষয় ছিলো যে, মানুষে মানুষে এখনকার চেয়ে অনেক বেশি মিল মহব্বত ছিলো। পুরো বাড়ী জুড়ে সকলের সাথে সকলের ঘনিষ্ট চলাফেরা, খাওয়া দাওয়া, আদর শাসন, সুখ দুঃখের মুহুর্তগুলো ভাগাভাগি হতো তখন।

তবে আমার এই লেখাটা আত্মঅহংকারীর বিষয়ে। তাই এই দিকটাই ফোকাস করবো লেখায়-

আমি কিছু মানুষকে দেখেছি যারা আত্ম অহংকারে মেতে থাকতো অর্থাৎ তাদের সন্তান, তাদের পরিবারের অন্যান্য সদস্য, আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে অহংকার করতে (গর্ব করা স্বাভাবিক) এবং এই বিষয়গুলো এমন ভাবে উপস্থাপন করতো যে, সাথে অন্যজনকে তাচ্ছিল্য করা হয়ে যায় সাথে। আমি এমন অনেক ঘটনা দেখেছি শৈশব-কৈশোরে। এই বিষয়গুলো এখন মনে করে লেখার কারণ হলো, সেইসব অহংকারী ব্যক্তিদের সন্তানেরা কিংবা তাদের সেসব আত্মীয় স্বজনের বর্তমান পরিণতি বা কর্মকান্ডের কথা চিন্তা করলে আমার পৈশাসিক আনন্দ লাগে। অবশ্য আমি আনন্দ প্রকাশ করি না, বরং কষ্টই লাগে। তবুও এভাবে বলার মানে হলো, অহংকারীর পতন ও খারাপ পরিণতিগুলো ভয়ংকর হয়। দুটো সময়ই আমি দেখেছি বলে এভাবে স্মৃতিচারণ করা।

বিপরীতে যাদেরকে তাচ্ছিল্যের চোখে দেখা হতো বা করা হতো, তাদের অধিকাংশই কত ভালো আছে এখন। এই ব্যাপারগুলো খুবই আনন্দদায়ক।

অহংকারীকে মহান আল্লাহ তায়ালা কিংবা রাসুল (সঃ) পছন্দ করেন না। অংহকারীকে জাহান্নামের দুঃসংবাদ দেয়া হয়েছে। দুনিয়াতেও শাস্তি হিসেবে করুণ পরিণতি ভোগ করতে হয়।

জুবায়ের আহমেদ
০৫ নভেম্বর ২০২৩

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial