ঢাকাশুক্রবার , ৩ নভেম্বর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

নারীর শখ

মৃধা প্রকাশনী
নভেম্বর ৩, ২০২৩ ২:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নারীর শখ: যে নারীর জীবন বিস্তৃত এক ঘর হইতে রান্না ঘর আর বাড়ির চার দেয়ালের সীমানায়, সেই বৃহৎ অংশের কতিপয় রমণীরা শিক্ষা লাভ করিয়া যখন ঘর হইতে বাহির হয়, উন্মুক্ত পৃথিবীর কোথাও কোথাও যাইবার অবকাশ পায়, তখনই হৃদয়ের সুপ্ত বাসনা আর স্বপ্ন গুলো স্মিত হাস্যে বাক্যালাপে প্রকাশ করিয়া থাকে। সেই স্বপ্নের কতক আর পূরণ হয়, বাকি সব অপূর্ণ শখের অধ্যায়ে কেবল ধুঁকতে থাকে৷ পল্লী ছাড়িয়া শিক্ষা লাভের আশায় যখন শহরের যান্ত্রিকতায় পদচারণ করে, স্বভাবতই শখের সংখ্যা পরিমাণে না বাড়িলেও স্বপ্নে আর আকাঙ্ক্ষায় তাহা দ্বিগুণ হইয়া উঠে। অথচ পূরণের তৃষ্ণায় ব্যর্থ চেষ্টার হিসাব তাহারে মধ্য রাত্রের বেলকনিতে দাঁড়াইয়া চাঁদের সামান্যতম স্পর্শ পাইবার মধ্য দিয়াই করিতে হয়। সুনির্দিষ্ট ক্যাম্পাসের অনিরাপদ বেষ্টনী কত ইচ্ছাকেই যে আবদ্ধ করিয়া প্রায় মৃতের মতো অবস্থায় লইয়া যায়, তখন না থাকে আর কোনো শখ, না থাকে কোনো আহ্লাদ।

একটি ভবনের মধ্য হইতে রাত্রের নির্দিষ্ট সময় পরে আর বের হইবার এতটুকু সামর্থ্য নাই, এত এত নিরাপত্তা প্রহরী তবুও সারা রাত্র ধরিয়া সজাগ থাকিয়া তাহার লিখিত জবান করিতে হয়। আপন আশ্রয়েও একটা নির্দিষ্ট গণ্ডিতে আবদ্ধ থাকিবার যে বেদনা তাহা বুঝিবার জন্য কোথাও কেউ নাই। এত সুন্দর, সুনিবিড় গাছের ছায়ায় রাতের ক্যাম্পাস দেখিবার, উপভোগ করিবার নিমেষ উপায়মাত্র অনুপস্থিত। চাঁদ দেখিবার আশে ওই সোহরাওয়ার্দীর মাঠের সবুজ ঘাসে মাথা রাখিবার শখ নারীর তরে আজন্মের অপূর্ণ হওয়া এক সাধের নাম। তবুও কতক আশা লইয়া রমণীরা আগাইয়া যায়, আনন্দ-হাসির অন্তরালে পড়িয়া থাকে নির্জন রাতের কংক্রিটের রাস্তায় হেঁটে যাওয়ার সুপ্ত এক শখ যাহা কখনোই বাস্তব হইয়া সমস্ত জীবনেও ধরা দিবে না৷ পল্লীর শিশির ভেজা ঘাস আর নরম মাটির অনুপস্থিতি যতটা না মন কে স্মৃতিকাতরতায় আচ্ছন্ন করে, তাহার চেয়েও বেশি হইলো এই যে_যাহা সম্মুখে বর্তমান তাহারে একবার স্পর্শ করিয়া না দেখিবার অতৃপ্ত মন।

সারা শহর যখন ঘুমে আবিষ্ট, যখন পাখি আর কাকেদেরও নাই কোনো কোলাহল, যখন প্রজাপতির ডানা মেলিয়া শরীরে স্পর্শ করিয়া বিবাহের স্বপ্ন হৃদয়ে লালন করিবার লক্ষ্য কে স্থাপন করিবার ব্যস্ততা হইতে মুক্তি লয়, তখন সখীদের নগ্ন পদস্পর্শে এই শহর, অলি-গলি মুখরিত হইতো যদি, মৃত মল চত্বরের মৃত ঘাসেও যদি একবার গা এলাইয়া দিতো, তবে রমণীর কতিপয় শখের পুরোটাই পূরণের অব্যর্থ হাসিতে গুঞ্জন ছড়াইতো। যান্ত্রিক শহরের এমনও শখ রমণীর যে_ ফুলারের রাস্তায় একবার মোটর সাইকেলের শব্দে কৃষ্ণচূড়ার পাখি যাবে উড়িয়া আর গাহিবে গান কোন রমণীর শখের যাত্রা হইতেছে পরিপূর্ণ। প্রকৃতির ঘুমন্ত নির্বাক্যে ফুটিয়া উঠিবে আনন্দ আর মৃদু হাসির অন্তরালে ভর করিবে রমণীর চোখের কাজলের অবর্ণিত মায়া৷ ছোট্ট চুল তাহার সেদিনকার শৈশবকে আশ্রয় করিয়া স্থির হইয়া আছে যান্ত্রিক বাতাসেও৷ নারীর হাজার শখের একেবারে নিমেষে পূরণ হওয়া ক্ষুদ্র শখ গুলো পূরণ করা পুরুষেরা পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর বৈশিষ্ট্য কে ধারণ করিয়া আছে।

ইসরাত জাহান সুমনা
শিক্ষার্থী, বাংলা বিভাগ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
isratjahansumonadu@gmail.com

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial