ঢাকাশুক্রবার , ২৭ অক্টোবর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

পুরুষ

মৃধা প্রকাশনী
অক্টোবর ২৭, ২০২৩ ৭:৩৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

মিলন রহমান

সৃষ্টির ধারা রক্ষাতে পুরুষ,
কামেতে হয়ে মগ্ন।
সুখে উদিত হয়ে পুরুষ, চেয়ে ছিল;
নারীর সঙ্গো।
এই যে তাহার হলো শুরু,
রংবে রংয়ের ভঙ্গ।

কেহ করিলো ঘৃণিত কাজ।
কেহ আবার স্বর্গেতে বাস
যুগল পথে সৃষ্টি হলো,
রক্ষা পেল জীবের ধারা।
তাই তো যুগল বাঁধলো বাসা
ভিন্ন জীবের, ভিন্ন জীবন কথা।

কেহ চাই না যেতে ভুবন ছেড়ে
প্রতি রুপ নিয়ে থাকবে পুরুষ,
সৃষ্টির মধ্যে দিয়ে।
রাখতে পারেনি সে কথা,
সৃষ্টিতে নারী যথাতথা,
দুইয়ের মিলনে হলো রক্ষা
নতুন সৃষ্টির ধারা।

তাই, পৃথিবী আজ লাগে শোভা;
নারী পুরুষের কৃতি দ্বারা।
এই শোভা ধ্বংস হলো,
অনেক নারী পুরুষের চিন্তা, কর্ম দ্বারা।

অজান্তেই চেয়ে ছিল পুরুষ,
এমন করে বেঁচে থাকার কথা ;
প্রতিরুপ দিয়ে করবে পূরণ,
আছে যতো আশা।
পারেনি তা করিতে যথাতথা,
নারীতে অর্ধেক আছে যে তা গাঁথা।

পৃথিবীর সব জীবের নর নারীর কথা ;
তাদের প্রয়াসে গড়ে উঠেছে,
যত জঞ্জাল ও সুখ শান্তির কথা।
জীবের অস্তিত্ব করিতে রক্ষা
কত প্রয়াস, কত যে চেষ্টা।

গাছে গাছে কত পাখি,
ভুলে যায় মাতা পিতার।
নিজের বংশ রাখতে আবার
সে খোঁজে নতুন বাসা ।

জলেতে কত প্রাণী,
ভুলে যায় সবার কথা।
ভুলিতে পারে না প্রাণ বন্ধুর কথা,
তাহাতে যে আছে নিজের রূপ গাঁথা।

গাছের শাঁখের সুন্দর ফুল গুলো,
চেয়ে আছে বন্ধু আশে।
সে ছাড়া পারবে না সে,
নতুন রূপ গড়তে।
এ এক মহান কাজ,
যেন উদ্ভিদ ও জীবের কাছে।

ভাব বিনে কি পাবে সঙ্গ?
এ ভাবের দুনিয়াতে।
তাই তো প্রেমের সৃষ্টি হলো,
এ জগৎ সংসারেতে।

তাহা নিয়ে ভাবলো কত,
মরলো কত জনে।
পুরুষ সারা জীবন টানলো গানি
তাহার ফাঁদে পড়ে।
কেহ আবার বাঁধলো বাসা
ক্ষণিকে এবং অনন্ত কালের।

প্রেম হলো কামের আভাস,
প্রেম ভাবেতে দিল সময়,
কামের অপেক্ষাতে।
পুরুষ তারে ভন্ড বলে,
মরে আগে ভাগে।

নিজের মধ্যে দিল নাড়া,
তাই তো নারীর পরলো তাড়া,
কে যে আমায় দিল নাড়া
তাতেই আমি হইলাম সাড়া।
ভাবতে আমায় গেল বেলা।

পুরুষ মিথ্যাকে সত্য বলে,
প্রসংসায় সমাপ্ত করে।
রূপ যে ধরে কত;

সব পুরুষের একই ধারা,
মৃত্যুর মতো সত্য।
দমন করে ভিন্ন হলো,
অনেক পুরুষ শূন্য ।
আমি আছি আমার আশায়
কবে পাব আমায় সত্য।

কত ধর্মে কত কথা,
সববি মিলে যায়
নারী পুরুষের ব্যাথা।
কাল,পত্র, অবস্থা ভেদে
বিচার হয় যে কত?
কাপুরুষে নিন্দা করে
না বুঝে মূলে।

সবারী মাঝে একই প্রাণ,
একই আশা, একই ভালোবাসা,
তবে কেন এত বন্ধকতা?
ভন্ডামীর ঝান্ডা দাও মেরে
কেন পুরুষ করলো এমন?
ভাবলে না কোনো কালে।
খুঁজতে যায় যে পুরুষ,
তারাই পাবে মানবের কিছু।

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial