ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৬ অক্টোবর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

ভুল পথে গন্তব্যে যাওয়া ব্যক্তিগণ সমাজের ক্যানসার

মৃধা প্রকাশনী
অক্টোবর ২৬, ২০২৩ ১২:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

পথে যেতে যেতে একটা কথা ভাবছিলাম,,এই যে পথ এ পথের তো কোনো শেষ নেই তবে চলার সীমারেখা নির্ধারণ করার জন্য দরকার একটা নির্দিষ্ট গন্তব্যের।
আর নির্ধারিত গন্তব্যে পৌঁছুবার জন্য সবার প্রথম যা প্রয়োজন তা হলো একটি সঠিক পথ, না হলে পথ হারিয়ে বিপথগামী হবার আশঙ্কাই বেশী। একই গন্তব্যে যাওয়ার যখন একাধিক পথ থাকে তখন যাত্রার সহজিকরণ বা কষ্ট লাঘবের কথা ভেবে অনেকেই ভুল পথে পা বাড়ায়।

আবার এমন ও আছে,গন্তব্যে যাওয়ার পথ একটাই এবং সেটা বিপদসংকুল, কষ্টসাধ্য। আগে থেকে ফলাফল নেতিবাচক হবার আশংকায় সে পথে পা না বাড়ানোটা বোকামি ই বটে, জীবন রোমাঞ্চকর সে জীবনযাত্রায় রোমাঞ্চ না থাকলে চলে কি করে!
ঝুকিপূর্ণ অথচ বৈধ পথে হাটলে অভিজ্ঞতার ঝুলি যেমন ভারি হবে তেমনি এর পরেই আসবে সফলতা।

এই লম্বা পথ পাড়ি দিতে গিয়ে আমাদের কত পথিকের সাথে দেখা হয়, কেউ কেউ আবার মাঝপথে এসে হারিয়ে যায়, দল থেকে বেরিয়ে ভুল পথে হাটঁতে শুরু করে,যেটাকে বলা হয় দলচ্যুত হওয়া,
যে দল থেকে বেরিয়ে এসে হারিয়ে না গিয়ে বরং উদ্ভাবনী কিছু করার ক্ষমতা রাখে,,নতুন দিগন্ত উন্মোচিত করার জন্য সৃজনশীল কিছু সৃষ্টি করে তার দল থেকে বেরিয়ে আসাটা তখন হয় বিদ্রোহ।এটার ও প্রয়োজন আছে।অর্থাৎ,আপনাকে যেমন সঠিক পথ নির্বাচনে দলভুক্ত হতে হবে তেমনি প্রয়োজনে দলচ্যুত হয়ে হতে হবে বিদ্রোহী। সৃষ্টির প্রয়োজনে উন্মোচিত করতে হবে নব দিগন্তের।

যে পথের আলোচনা আমরা এতোক্ষণ করছিলাম তা যেন আমাদের বাস্তব জীবনেরই রূপরেখা, জীবন চালনার জন্য যেমন এক বা একাধিক পথ রয়েছে তেমনি
বর্তমানে অর্থ উপার্জনের জন্যও রয়েছে বিবিধ পথ। সুনির্দিষ্ট পেশা ছাড়াই অর্থ লাভের নেশায় মানুষ বেছে নিচ্ছে নানা উপায়। অনলাইন জগতে এ নিয়ে চলে তুমুল প্রতিযোগিতা। ট্রেন্ডের শ্রোতে গা ভাসিয়ে ভালো মন্দের বিচার না করেই সুষ্ঠু বিবেকবোধ পাচ্ছে লোপ,তাতে অর্থ উপার্জনের গতি কিন্তু থেমে থাকে নি।এইযে একটা অসুস্থ প্রতিযোগিতা চলছে তা কিন্তু কোনো সুস্থ মানুষের নয়।এই মানুষের উদ্দেশ্য কিন্তু অর্থ,তাতে যে কোনো পথই হোক না কেনো। একটা মানুষ রাস্তায় দূর্ঘটনার শিকার হলে তাকে সাহায্যের পরিবর্তে বাড়তে থাকে সোস্যাল মিডিয়ার ভিউ,তাতে বরং লাভের লাভ ওই ক্যানসারে আক্রান্ত সমাজের কিছু অমানবিক অসুস্থ মানুষের।আপনি যদি ভাবেন একটু,,কোন পর্যায়ের দিকে যাচ্ছে আসলে এই সমাজ, এই সভ্যতা।এই প্রতিযোগিতার শেষ কি তবে একটা জাতিরই শেষ করার পথ নয়? আমাদের পরিচয় দাঁড়িয়ে আছে একটা নড়বড়ে ভিতের উপরে,কার কতো ফলোয়ার বাড়লো,,নতুন কয়টা ট্রেন্ড আসলো সেটা নিয়ে এক অসুস্থ প্রতিযোগিতার।আমাদের অবশ্যই উদ্দেশ্য ঠিক থাকে তবে সেই উদ্দেশ্যে যে পৌঁছানোর রাস্তা সেটা কিন্তু ঠিক নিয়।অথচ,পথ ভুলে বিপথগামী হয়ে যে অন্যায়,অসমাজিক কার্যকলাপের পরিমাণ এবং সেই সাথে অপরাধের পরিমাণ বাড়ছে তার নজির বহু।তবুও আমাদের কি এই সুফলা দেশে কিছু ভালো করার যে প্রয়াশ আছে তেমনি সমাজের ক্যানসারদের কারনে নেতিবাচকতা আঁকড়ে ধরে বসে আছে উন্নতির অন্তরায়। এমন দিন ও হয়তো আসবে আপনি অনলাইনে বসে দেশের ধ্বংসযজ্ঞ দেখবেন,তাতে লাইক শেয়ার করবেন অথচ তা সমাধানের জন্য এগিয়ে যাবেন না,অনলাইনে মানবতাবাদী হয়ে অফলাইনে লাপাত্তা হওয়ার মতো মানুষরুপী কিছু ভয়ঙ্কর প্রানীর বিচরন চলতেই থাকবে।ভবিষ্যতে কি হবে তা নিয়েই এখন আশংকা।

নাম:কানিজ ফাতেমা
ডিপার্টমেন্ট:রাষ্ট্রবিজ্ঞান(22-23)
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান:ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ফোন:০১৬০৯৪৯৪৮৩৫
মেইল:kanijf713@gmail

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial