ঢাকাশনিবার , ২১ অক্টোবর ২০২৩
  • অন্যান্য
  1. আইন
  2. ইতিহাস
  3. ইসলামী সঙ্গীতের লিরিক্স
  4. কবিতা
  5. কিংবদন্তী কবিদের কবিতা
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গল্প
  9. চিঠিপত্র
  10. জনপ্রিয় বাংলা গানের লিরিক্স
  11. তারুণ্যের কথা
  12. ধর্ম
  13. প্রবন্ধ
  14. প্রযুক্তি
  15. ফিচার

আজব সঙ্গী!

মৃধা প্রকাশনী
অক্টোবর ২১, ২০২৩ ৬:৪১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

 

এক অদ্ভুত সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে রিনতু! কোনোভাবেই সে উদ্ধার করতে পারছে নাহ সমস্যার কারণ। সমস্যাটা হলো সে কোন কাজ ঠিক সময়ে ঠিকভাবে করতে পারছে নাহ। পরিকল্পনা করে এক, হয় আরেক!
এই যেমন আজকে সকালের কথাই ধরা যাক। রিনতুর প্ল্যান ছিল ঘুম থেকে দ্রুত উঠে একটু গল্পের বই পড়বে। তারপর নিজের লাগানো শখের গাছগুলোর ভালো মতোন পরিচর্যা করবে দুপুর অবধি।
সব ঠিকই ছিল। একটু দেরীতে ঘুম থেকে উঠলেও নাস্তা করার সময়ও নিজে নিজে সে কাজগুলো সাজাতে থাকে। গল্পের বইটা হাতে নেওয়ার পর হঠাৎ তার মনে পড়ে গাছের জন্য স্পেশাল একটা টব অর্ডার দিয়েছিল অনলাইনে। কবে ডেলিভারি দিবে এটা জানার জন্য ফোনটা হাতে নেয়। ইচ্ছে ছিল শুধু ডেলিভারির ডিটেইলসটা দেখেই মোবাইল রেখে দিবে। কিন্তু তা আর হলো কই?
ওয়াইফাই অন করে অনলাইনের জগতে প্রবেশের পরই ২ মিনিট যে কিভাবে ২ ঘন্টায় পরিণত হলো তা কোনোমতেই হিসাব মেলাতে পারছে নাহ রিনতু!
শুধু এটা নয়, এরকম আরও বেশ কিছু উদাহরণ রয়েছে। পূজার ছুটিতে বাসায় আসার সময় সে ব্যাগে করে নিজের একাডেমিক বেশ কিছু বই নিয়ে এসেছে। উদ্দেশ্য হলো ছুটিতে সেমিস্টারের কিছু পড়া শেষ করে আসা। খাওয়ার চিন্তা নেই, ক্লাসের প্যারা নেই তাই তার ধারণা ছিল ভালো করেই পড়াশোনা হবে বাসায় গিয়ে। কিন্তু অবাক করা বিষয় হলো পড়া তো দূরের কথা, বইগুলো ব্যাগ থেকে বের পর্যন্ত করা হয়নি রিনতুর! এটা যখন রিনতু বুঝতে পারলো তার বিস্ময়ের সীমা থাকলো নাহ!!
ছুটিতে প্রতিটা বিকেলে কোথাও না কোথাও ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান ছিল। নিজের ছোটবেলার বন্ধু-বান্ধবীদের সাথে আড্ডা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এবেলায়ও একই ঘটনা। ও একদিনও বাইরে বের হয় নি। ঘরে শুয়ে বসেই ছুটি কাটাচ্ছে। শুধু রিনতু নয় ওর আশেপাশের প্রায় সবারই একই অবস্থা!! কিন্তু এর কারণটা কি???
মাকে বলতেই মা হেসে বললো- “তোদের আর সময় কাটানোর জন্য বই-গাছ বা বাইরে বের হওয়া লাগবে কেন? তোদের তো এক আজব সঙ্গী আছে। সেই-ই তো সারাক্ষণ সঙ্গ দেয় তোদের”।
” আজব সঙ্গী”? রিনতু অবাক হয়। কার কথা বলছে মা? আরেকটু ক্লিয়ার করতেই সে বুঝতে পারে মা আসলে তার হাতে থাকা মোবাইলের কথা বলছে।
আস্তে আস্তে হিসাব কষতে থাকে সে। সত্যি সত্যি খেয়াল করে দেখে যে খাওয়া-ঘুম আর নিত্য-প্রয়োজনীয় কাজ ব্যতীত আর সারাক্ষণ কোনো না কোনোভাবে তার হাতে মোবাইল থাকে। ধরতে গেলে ছুটি প্রায় পুরোটাই কাটিয়ে দিচ্ছে সে অনলাইনের জগতে!নোভাবে তার হাতে মোবাইল থাকে। ধরতে গেলে ছুটি প্রায় পুরোটাই কাটিয়ে দিচ্ছে সে অনলাইনের জগতে!
হতাশ হয় রিনতু। ছোটবেলার লম্বা ছুটির কথা মনে পড়ে যায়। একটু ছুটি পেলেই কোনো না কোনো বই শেষ করার বা গাছ লাগানোর প্রতিযোগিতা হতো বন্ধু মহল্লায়। পাশাপাশি কে কয়দিন দাদুবাড়ি-নানুবাড়ি থাকতে পারে তারও একটা হিসাব কষাকষি চলতো। কিন্তু আজ সেসব কোথায়?
রিনতু ভাবে সে একা নয়, বর্তমান সমাজের প্রায় প্রত্যেকটা ছেলেমেয়েরই গল্পটা কাছাকাছিই। তাদের ছুটিগুলো এখন আর রঙিন কোন গল্প হয়ে ছুটে বেড়ায় নাহ। বরং আটকে থাকে মোবাইল নামক আজব সঙ্গীর অনলাইন নামক আজব দুনিয়ায়!!

-তাহমিনা তামান্না
বাংলা বিভাগ,
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Please follow and like us:

Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial